কড়ানজর
  • September 20, 2021
  • Last Update September 20, 2021 2:51 am
  • গাজীপুর

সন্তানকে দাফনের দুই ঘন্টার মাথায় মায়ের মৃত্যু

সন্তানকে দাফনের দুই ঘন্টার মাথায় মায়ের মৃত্যু

কড়ানজর প্রতিবেদকঃ

বৃহস্পতিবার (২৯জুলাই) রাতে মৃত সন্তান প্রসব করেন রহিমা খাতুন (৩৬)। মাত্র কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে  শুক্রবার (৩০জুলাই) বেলা একটার দিকে মারা যান রহিমা খাতুন। রহিমা মিরপুর উপজেলার হালসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। লাশ হালসা গ্রামে দাফন করা হবে।

রহিমা খাতুনের স্বামী আশরাফুল আলম মৃত সন্তানের লাশ দাফনের জন্য সকালে গ্রামে ছুটে যান। বেলা ১১টা নাগাদ লাশ দাফন করেন। দাফনের ঘণ্টা দুয়েকের মাথায় তিনি ফোনে জানতে পারেন, হাসপাতালে করোনা চিকিৎসাধীন স্ত্রী রহিমা খাতুনও চলে গেছেন না ফেরার দেশে।

সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা রহিমা খাতুনের (৩৬) এক সপ্তাহ আগে করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে তিনি কুষ্টিয়া করোনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মৃত সন্তান প্রসব করেন তিনি। এরপর আজ শুক্রবার (৩০জুলাই) বেলা একটার দিকে মারা যান রহিমা খাতুন। এ সময় তাঁর পাশে ভাই আশরাফুল আলম ও বোন হাজেরা খাতুন ছিলেন।

বোনের মরদেহ ট্রলিতে করে হাসপাতাল থেকে বের করার সময় ভাই আশরাফুল আলম বলেন, ‘অনেক চেষ্টা করলাম, কাউকে ধরে রাখতে পারলাম না। বোনজামাই আশরাফুল তাঁর সন্তানকে দাফন করতে গিয়েছিলেন। এরপর বোনের মৃত্যুর খবর শুনে তিনিও শোকে কাতর হয়ে পড়েছেন।’

এর আগে রহিমার স্বামী আশরাফুল আলম গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, ২০ জুলাই জ্বরসহ করোনার কিছু উপসর্গ দেখা দেয় রহিমার শরীরে। ২৩ জুলাই তাঁকে করোনা হাসপাতালে আনা হয়। নমুনা দেওয়ার পর পজিটিভ শনাক্ত হলে তাঁকে দ্রুত ওয়ার্ডে ভর্তি করে অক্সিজেন দেওয়া হয়। বেশির ভাগ সময়ই তাঁকে অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে রাখতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *