কড়ানজর
  • September 19, 2021
  • Last Update September 19, 2021 9:03 pm
  • গাজীপুর

মাদ্রাসাছাত্রকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে

মাদ্রাসাছাত্রকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে

কড়া নজর প্রতিবেদকঃ

এক শিশুশিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে। শিক্ষার্থীর বাড়ি গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মনতলা গ্রামে। সে টাঙ্গাইলের সখীপুরের একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। শুক্রবার (৩ আগস্ট) এ ঘটনা ঘটে।

শিশুটির নাম মো. আবদুল্লাহ (৯)।সে কালিয়াকৈরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আবদুল্লাহ সখীপুরের কালমাঘাট এলাকার মোহাম্মদিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম আজিজুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, শিশুটিকে মারধর করা হয়নি।

শিশুটির বাবা রবিউল ইসলাম বলেন, “মাদ্রাসা থেকে আবদুল্লাহর খাবারের প্লেট হারিয়ে যায়। সেই ভয়ে সে বৃহস্পতিবার সকালে মাদ্রাসার পাশে কালিয়াকৈর উপজেলার সলংগ্ন গ্রামে নানার বাড়িতে চলে যায়। পরের দিন তার নানি আবার মাদ্রাসার শিক্ষক আজিজুল ইসলামের কাছে রেখে আসেন। মাদ্রাসায় রেখে আসার পর তাকে শিক্ষক আজিজুল ইসলাম মারধর করেন। এ সময় তার বাঁ হাত ভেঙে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় একটি অটোরিকশায় করে আবদুল্লাহকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।”

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মাদ্রাসার শিক্ষক আজিজুল ইসলাম বলেন, “আবদুল্লাহকে মারধর করা হয়নি। সে আবার বাড়ি চলে যেতে চাইলে হাত ধরে রাখার চেষ্টা করা হয়। এ সময় সে পড়ে গেলে হাত ভেঙে যায়।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *