কড়ানজর
  • September 26, 2021
  • Last Update September 25, 2021 7:00 pm
  • গাজীপুর

বাবুনগরী-মামুনুলরা গোপনে দেশ ত্যাগ করছেন !


কড়া নজর প্রতিবেদন:

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের হোতা বাবু নগরী ও মামুনুলরা সীমান্ত দিয়ে প্রথমে ভারত ও পরে সুবিধাজনক সময়ে আফগানিস্তান যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন। রাষ্ট্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
গোয়েন্দা তথ্য মতে, নিজেদের ঘনিষ্ট সহকর্মী এমনকি পরিবারের সদস্যদের না জানিয়ে ওই দুইজন দেশ ত্যাগ করার পরিকল্পনা করেছেন।
‘এত গোপনীয়তার কারণ কী’ ? প্রশ্ন রাখলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে সংস্থার একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা কড়া নজরকে জানান,‘ উদ্দেশ্য দুইটি। এক হলো, নিরাপদ দূরত্বে থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ, দ্বিতীয় কারণ হলো সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মধ্যে এ ধারণা দেওয়া যে সরকার তাদেরকে গোপন স্থানে আটক করে রেখেছে, এক সময় চিরদিনের মত উধাও করে দিবে ৷মতাদর্শীরা সর্বশক্তি প্রদর্শন করে সরকারের বিরুদ্ধে তুমুল আন্দোলন গড়ে তুলবে। বাবু নগরীদের আশা সরকারকে টাল-মাটাল অবস্থায় ফেলে দিতে পারলে তখন বিএনপি জামায়াতসহ সকল বিরোধি দল আন্দোলনে যোগ দিবে। আখেরে ‘ইসলামবিরোধী’ এ সরকারের পতন ঘটবে’। এক প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘ সরকার পরিস্থিতির উপর তীক্ষè নজর রাখছে। কোন গোষ্ঠিকে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার সুযোগ দিবে না’।
মামুনুলদের বক্তব্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে ভাস্কর্য ভাংচুর
কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় গ্রেপ্তাররা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানিয়েছে তারা বাবু নগরী ,মামুনুল হকদের বক্তব্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর করে।
কুষ্টিয়ার পাঁচ রাস্তার মোড়ে নির্মানাধীন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙ্গার ঘটনায় গ্রেপ্তার চার আসামিকে আজ আদালতে হাজির করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কুষ্টিয়া মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নিশি কান্ত সরকার বেলা ১টা ৩৫ মিনিটে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. রেজাউল করিমের আদালতে হাজির করেন। তদন্ত কর্মকর্তা কুষ্টিয়া শহরের জগতি পশ্চিমপাড়া এলাকার ইবনি মাসউদ (রা.) নামে কওমী মাদ্রাসার দুই শিক্ষক মো. আল আমিন (২৭) ও ইউসুফ আলীকে (২৬) ৭ দিন করে এবং একই মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের দুই ছাত্র আবু বক্কর ওরফে মিঠুন (১৯) ও সবুজ ইসলাম ওরফে নাহিদ (২০) কে ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। আদালতের পুলিশ পরিদর্শক মো. রেজাউল করিম জানায়, রিমান্ডের আবেদন গ্রহণ করেছেন আদালত। মঙ্গলবার রিমান্ডের শুনানির দিন ধার্য করে আসামিদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।
শুক্রবার রাতে কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে শনিবার রাতে কুষ্টিয়া পৌরসভার সচিব কামাল উদ্দীন বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেন। সেই মামলায় ওই চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ফুটেজ দেখে আসামিদের শনাক্ত
কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে নির্মাণাধীন ভাস্কর্যটির কাছেই একটি দোকানের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় চারপাশে বাঁশ ও কাঠের পাটাতন দিয়ে ঘেরা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যটিতে সাদা আলখাল্লা ও পায়জামা দু’জন একটি মই বেয়ে উঠছে । তাদের শরীরের ওপরের অংশে কালো ভেস্ট অথবা কোটের মতো কিছু পরনে। মাথায় সাদা টুপি। কাঠের পাটাতনে উঠে দ্রুততার সঙ্গে ভাস্কর্যটির উপরের দিকে ও ডান হাতে ভারী কিছু একটা দিয়ে জোরে আঘাত করছেন। ফুটেজটি ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোেেধ্যই ভাইরাল হয়েছে।
ফুটেজ দেখে পুলিশ উল্লেখিত মাদ্রাসার দুই ছাত্র ও তাদের পলায়নে সহযোগিতার অভিযোগে দুই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে।
বাবুনগরী ও মামুনুলের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা
বাংলাদেশে হেফাজতে ইসলামীর নেতা জুনায়েদ বাবুনগরী এবং মামুনুল হকসহ তিন জনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে মামলা করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ এবং বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন নামের দু’টি সংগঠন। অপর অভিযুক্ত ইসলামী আন্দোলনের নেতা সৈয়দ ফয়জুল করীম।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেওয়ার কারণে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে মামলার দু’টি আবেদনের শুনানির পর আদালত পিবিআইকে অভিযোগ তদন্ত করে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন পেশ করার নির্দেশ দিয়েছে।
ঢাকার ধোলাইরপাড় এলাকায় বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করে হেফাজতে ইসলামের আমীর জুনায়েদ বাবুনগরী, যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকসহ ইসলামপন্থী কয়েকটি সংগঠনের নেতারা ভাস্কর্য-বিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন।
সম্প্রতি জুনায়েদ বাবুনগরী এক বক্তব্যে বলেছেন, ‘কেউ যদি আমার আব্বার ভাস্কর্য স্থাপন করে, সর্বপ্রথম আমি আমার আব্বার ভাস্কর্যকে টেনে-হিঁচড়ে ফেলে দেব।’
কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রতি শুক্রবার বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ভাস্কর্য বিরোধী কয়েকটি দল।
এর জেরে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাথে ইসলামপন্থী দলগুলোর টানাপোড়েন চলছে।
এ দিকে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ার পাবলিক লাইব্রেরির সামনে রোববারও মানববন্ধন করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *