কড়ানজর
  • September 20, 2021
  • Last Update September 20, 2021 2:51 am
  • গাজীপুর

কোভিড-১৯: আরও ২৩৯ মৃত্যু, রংপুরে আইসিইউ ফাকা নেই, বিনা চিকিৎসায় ৫ রোগীর মৃত্যু

কোভিড-১৯: আরও ২৩৯ মৃত্যু,                                                                রংপুরে আইসিইউ ফাকা নেই, বিনা চিকিৎসায় ৫ রোগীর মৃত্যু

কড়ানজর প্রতিবেদকঃ

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ২৩৯ জন। তাদের নিয়ে সরকারি হিসাবে মোট মারা গেলেন ২০ হাজার ২৫৫ জন। এসময় করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ২৭১ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনায় সর্বমোট শনাক্ত হলেন ১২ লাখ ২৬ হাজার ২৫৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৪ হাজার ৩৩৬ জন। তাদের নিয়ে দেশে মোট সুস্থ হলেন ১০ লাখ ৫০ হাজার ২২০ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ৫৫ হাজার ৯৮২টি, আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫২ হাজার ২৮২টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭৬ লাখ ৬৪ হাজার ৮৭০টি।

মারা যাওয়া ২৩৯ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৭৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৫৭ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৩ জন, খুলনা বিভাগের ৪৫ জন, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের ১৪ জন করে, রংপুর বিভাগের ১১ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন ৯ জন।

রংপুরে আইসিইউ ফাকা নেই, বিনা চিকিৎসায় ৫ রোগীর মৃত্যু

রংপুর সহ বিভাগের দুটি কোভিড স্পেশালাইজড হাসপাতালের ২৪টি আইসিইউ বেডের এটিও ফাঁকা নেই। ফলে মুমুর্ষ রোগীরা আইসিইউ বেডের অভাবে চরম দূর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসিইউতে ভর্তি হতে না পেরে বিনা চিকিৎসায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এরা সকলেই সাধারণ ওয়ার্ডে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, রংপুরে কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে একশ বেডের হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হলেও সেখানে কাগজ কলমে আইসিইউ বেড আছে মাত্র ১০টি। কিন্তু ৮টি বেডে আইসিইউ সংক্রান্ত সকল যন্ত্রপাতি রয়েছে। দুটি বেডের আইসিইউ কোন সামগ্রী নেই। ফলে ৮টি বেড দিয়ে চলছে কোভিড হাসপাতালের কার্যক্রম।

অন্যদিকে সম্প্রতি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডকে কোভিড ইউনিট হিসেবে ঘোষণা দিয়ে সেখানে ৩১ বেডের কোভিড ইউনিট চালু করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে একটিও আইসিইউ বেড নেই। শুধু মাত্র মুমুর্ষ রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ করার লাইন রয়েছে। সেই অক্সিজেন সরবরাহ লাইনও চলছে জোড়াতালি দিয়ে। তার পরেও দুই হাসপাতালে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত আইসিইউ ৮টি বেড সহ রোগী আছে ১৯০জন। অথচ দুটি হাসপাতালে রোগীর বেড আছে ১৩১টি। ফলে ৫৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী বেডে জায়গা না পাওয়ায় ফ্লোরিং করে মানবেতর ভাবে অবস্থান করছে।

এদিকে দিনাজপুর কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালের ১৬টি আইসিইউ বেডের একটিও খালি নেই। বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত একটিও আইসিইউ বেড খালি হয়নি।

রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ করার শর্তে বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মুমুর্ষ রোগী যাদের আইসিইউ সাপোর্ট দেয়া খুবই জরুরী এমন অন্তত ১৫ জন রোগীকে আইসিইউ সাপোর্ট দেয়া যাচ্ছেনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *